Home ব্যবসায়িক পরামর্শ এসি মেরামত ব্যবসা
এসি মেরামত ব্যবসা

এসি মেরামত ব্যবসা

by Tandava Krishna

কিভাবে এসি মেরামতের ব্যাবসা শুরু করা যায়?

একবিংশ শতাব্দির শুরু থেকেই একাধিক অত্যাধুনিক যন্ত্র আমাদের প্রাত্যহিক জীবনের সাথে অঙ্গাঙ্গিক ভাবে জরিয়ে পরেছে। এই জন্ত্রগুলি প্রাথমিকভাবে প্রস্তুত করা হয়েছিল আমাদের সাধারণ জীবনযাত্রায় সহায়তা করার জন্য। তবে বর্তমানে আমরা এই সকল যন্ত্রপাতি এত বেশি মাত্রায় ব্যাবহার করছি যে তা ছাড়া আমাদের এক মুহুর্তও অতিবাহিত করাও বেশ কষ্টসাধ্য হয়ে দাড়ায়। আর এই সমস্ত জন্ত্রপাতির মধ্যে অন্যতম যে যন্ত্রটি আমাদের জীবনে সবচেয়ে বেশি প্রভাব ফেলেছে তা হল এসি বা বাতানুকুল যন্ত্র।বর্তমানে পৃথিবীর তাপমাত্রা প্রতিনিয়ত বেড়েই চলেছে। আর এই বর্ধমান তাপমাত্রার মধ্যে জবন অতিবাহিত করার জন্য মোটামোটি প্রত্যেক ব্যাক্তিই এসির সহায়তা নিয়ে থাকেন। আর এই কারনেই এই হিমযন্ত্র একদিনের জন্যও খারাপ হলে আপনাকে অনেক কস্তের মধ্যে সেই দিনটিকে অতিবাহিত করতে হয়। 

তবে এই সমস্যা খুব সহজেই সমাধান করা যেতে পারে যদি আপনি খুব তাড়াতাড়ি কোন একজন এমন ব্যাক্তির সাথে যোগাযোগ করতে পারেন জিনি আপনার এসিতিকে যথাসীঘ্র মেরামত করে দিতে পারেন। তবে এই ধরনের সেবা প্রদানকারীর সাথে যোগাযোগ করাই একটি যথেষ্ট কষ্টসাধ্য ব্যাপার। তার কারন হল এই ধরনের সেবা প্রদানকারীর চাহিদা বেশি হলেও এই ধরনের সেবা প্রদানকারী ব্যাবসার সংখ্যা অনেকই কম। তাই আপনি যখন নিজে কোন ব্যাবসা শুরু করার পরিকল্পনা করবেন, আপনি ইচ্ছে করলেই এই ধরনের ব্যাবসা শুরু করার কথা ভাবতে পারেন। তা করলে আপনি বিস্বব্যাপি এই বিশাল চাহিদার বাজারের এক অংশ খুব সহজেই অধিকার করে ব্যাবসায় সাফল্য লাভ করতে পারবেন। তবে এই ব্যাবসা শুরু করতে গেলে আপনাকে এই বিষয়ে বেশ কিছু তথ্য জেনে নিতে হবে। তাই আসুন আর দেরি না করে আমরা এসি মেরামতের ব্যাবসা সম্পর্কে যাবতীয় কিছু তথ্য জেনে নিই।

এসি মেরামতের ব্যাবসার প্রাথমিক ব্যাবস্থা

যেকোনো ব্যাবসা শুরু করার আগে কিছু প্রাথমিক প্রস্তুতি নিতে হয় যা সেই ব্যাবসার ভিত্তি প্রস্তর হিসেবে কাজ করে। এই প্রস্তুতি সঠিক না হলে যেকোনো ব্যাবসা পরবর্তী কালে বিশেষ সমস্যার সম্মুখীন হতে পারে। আর এসি রিপেয়ারের ব্যাবসাও এই নীতির ব্যাতিক্রম নয়। তাই আপনি যখন এই ধরনের ব্যাবসা শুরু করার কথা ভাববেন, তখন আপনার উছিত নিম্নলিখিত বিষয়গুলির উপর বিশেষ গুরুত্ব দেওয়া। 

১)প্রজুক্তিগত প্রশিক্ষণ-

এসি বা হিমজন্ত্র খুবই জটিল গঠনে তৈরি হয়ে থাকে। তাই আপনি যখন এই যন্ত্র মেরামত করার চেষ্টা করবেন, আপনার এই যন্ত্রের গঠন সম্পর্কে প্রজুক্তিগত জ্ঞান থাকা প্রয়োজন। এ ছাড়া আপনি যখন উপভোক্তার হিমজন্ত্র নিয়ে কাজ করবেন, আপনাকে নিস্ত=চিত হতে হবে যাতে সেই যন্ত্রের কোন ক্ষতি না হয়। আর এই সমস্ত বিশেষ জ্ঞানের জন্য আপনার বা আপনার কর্মচারীর বিশেষ প্রযুক্তিগত প্রশিক্ষণ থাকা খুবই প্রয়োজন।

২)নির্দিস্ট যন্ত্রপাতি-

আমরা আগেই উল্লেখ করেছি যে এসির গথন অন্যান অনেক যন্ত্রের থেকে বেশি জটিল। তাই এই যন্ত্র মেরামতের কাজও খুবই জতিল হয়ে থাকে। তবে এইরকম পরিস্থিতিতে আমাদের কাজ আরও সহজ করে তলার জন্য বেশ কিছু যন্ত্রপাতি বাজারে পাওয়া যায়। এই সকল যন্ত্রপাতি একেবারে অপরিবর্তনযোগ্য না হলেও এই যন্ত্রপাতি গুলি আমাদের সাথে না থাকলে এই কাজ আমাদের জন্য অনেক বেশি কঠিন হয়ে যায়। এতে আপনার ক্রেতা বা উপভক্তার হিমজন্ত্রের ক্ষতিসাধনের সম্ভাবনাও বেড়ে যায়। তাই এই ব্যাবসা শুরু করার আগে আপনার এই বিষয়ে নিসসচিত হওয়া প্রয়োজন যে আপনি ওই সকল যন্ত্রপাতির ব্যাবস্থা করতে পারবেন কিনা।

৩)ন্যাজ্য মুল্য-

এই বাজারে অবতরনের সময়ে আপনাকে আরও একটি খুবই গুরুত্বপূর্ন কথা স্মরনে রাখতে হবে। তা হল এই যে আপনি যদি প্রয়জনের চেয়ে বেশি মুল্য নিয়ে এই কাজ করে থাকেন, তবে আপনার পক্ষে এই ব্যাবসায় নিজের স্থান করে নেওয়া বেশ কঠিন হয়ে দাঁড়াবে।

এসি মেরামতের ব্যাবসার সুবিধা

আপনি যখন এসি মেরামত করার ব্যাবসা শুরু রতে ইচ্ছুক, তখন আপনার জানা দকার যে এই ব্যাবসা শুরু করলে আপনি কি কি সুবিধা পেতে পারেন। আর আপনার সুবিধার জন্য এই সুবিধাগুলির কথা নিচে বিস্তারিত ভাবে ব্যাক্ত করা হল।

১)অনর্গল চাহিদা-

এসির ব্যাবহার বর্তমান যুগে অত্যন্ত বেশি। আর এই সমস্ত এসি ব্যাভারকারি তাদের এসির বেরামতের জন্য সর্বদাই দক্ষ কর্মচারি খুজে চলেছেন। তাই আপনি এই ব্যাবসা শুরু করলে এই সকল ব্যাক্তিদের প্রয়োজন মিতিয়ে সহজেই অর্থ উপার্জন করতে পারেন।

২)স্বল্প স্থানে ব্যাবসার সূচনা-

এসি মেরামতের ব্যাবসা একটি পরিসেবা মুলক ব্যাবসা। তাই পন্য মূলক ব্যাবসার মত এখানে কোন পন্য কে মজুত করে রাখতে হয় না। তাই আপনি যদি নিজের ব্যাবসা শুরু করার জন্য কোন যায়গা না কিনা বা না ভাড়া নিয়ে থাকেন তাহলেও আপনার কোন সমস্যা হবে না। আপনি ইচ্ছে করলেই স্বল্প থেকে স্বল্পতম যায়গাতেই এই ধরনের ব্যাবসা শুরু করতে পারবেন। 

৩)মাসিক কন্ট্রাক্ট-

বর্তমানে অধিকাংশ বড় কম্পানি এবং শিল্পপতিরা তাদের অফিসে এবং কর্মক্ষেত্রে একাধিক এসি বা বাতানুকুল যন্ত্র ব্যাবহার করে থাকেন। আর যখন এতগুলি যন্ত্র একসাথে ব্যাবহার হয়, তখন এতগুলি যন্ত্রের মেরামতেরও প্রয়োজন হয়। আর এই এসিগুলির মেরামতের জন্য এই সকল কোম্পানিগুলি মাসিক কন্ট্রাক্ট স্বাক্ষর করে থাকেন। আর আপনি যদি এইরকমই কোন কম্পানির সাথে কন্ট্রাক্ট স্বাক্ষরের ব্যাবস্থা করতে পেরে থাকেন, তবে আপনি দীর্ঘদিনের কর্ম সংস্থান একই সাথে করে ফেলতে পারবেন।

এসি মেরামতের ব্যাবসার অসুবিধা

এসি মেরামতের ব্যাবসায় যেমন সুবিধা আছে একাধিক, তেমন সমস্যাও আছে কিছু। আর এই সমস্ত সমস্যার অনেকগুলিই এমন যা অন্যান ধরনের ব্যাবসায় দেখা যায় না। তাই আপনাকে ব্যাবসা শুরু করার আগে ভাল করে জেনে নিতে হবে যে এই ব্যাবসায় অবতীর্ন হলে আপনি কি কি বাধার সম্মুখীন হবেন। তাই আসুন আমরা এই সমস্যাগুলি সম্পর্কে কিছু বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ তথ্য জেনে নিই।

১)খরচসাপেক্ষ যন্ত্রপাতি-

আমরা আগেই আপনাদের জানিয়েছি যে এই ব্যাবসা শুরু করতে গেলে আপনাদের বিশেষ কিছু যন্ত্রপাতি ক্রয় করতে হবে। আর অধিকাংশ ক্ষেত্রেই এই সমস্ত যন্ত্রপাতি প্রচুর দামি হয়। তাই একটি নতুন ব্যবসার জন্য সেই খরচ বহন করা একটু কঠিন হয়ে পড়ে।

২)উপভোক্তার পন্যের ঝুকি-

এসি মেরামতের ব্যাবসা এমনই একটি ব্যাবসা যেখানে আপনাকে আপনার উপভোক্তার নিজস্ব সম্পত্তিকে ভিত্তি করে কাজ করতে হয়। তাই আপনি যখন সেই কাজ করবেন, তখন আপনাকে এই কথা সর্বদা মনে রাখতে হবে যে উপভোক্তার পন্যের যেন কোন ক্ষতি আপনার কারনে না হয়। কারন তা হলে আপনাকে সেই কারনে অনেক সমস্যার সম্মুখীন হতে হবে।

এতক্ষন আমরা এসি মেরামতের ব্যাবসা সম্পর্কে বেশ কিছু তথ্য নিয়ে আলোচনা করলাম।আমরা এই ব্যাবসার প্রাথমিক পদক্ষেপ সম্পর্কে জেনেছি যা আমাদের এই ধরনের ব্যাবসার সূচনাকালে বিশেষ সহায়তা করবে। আমরা এই ব্যাবসার সুবিধা ও অসুবিধা সম্পর্কেও জেনেছি। আর সেই কারনেই আমরা এই ব্যাবসা শুরু করার সময়ে এই সমস্ত বিষয় গুলির বিস্তারিত জ্ঞান রাখব এবং খুব সহজেই ব্যাবসায়িক কাজকর্ম চালিয়ে যেতে পারব। তাই আর সময় নষ্ট না করে উপরের প্রবন্ধ থেকে আপনার প্রয়োজনীয় তথ্য সংগ্রহ করুন। এরপর সেই সমস্ত তথ্যগুলিকে সময় নিয়ে ভালভাবে বিশ্লেষণ করুন। তা করলে আপনার কাছে এই ব্যাবসার জন্য একটি পরিকল্পনা তৈরি করা সহজ হয়ে যাবে। আর তারপর এই পরিকল্পনা তৈরির  কাজ যখন আপনি শেষ করবেন তখন আপনি খুব সহজেই নিজের ব্যাবসা শুরু করতে পারবেন এবং সেই ব্যাবসার মাধ্যমে প্রচুর অর্থ উপার্জন করে উন্নতির সিখরে পউছতে পারবেন।

Related Posts

Leave a Comment